You are currently viewing বিজি লাইফকে ইজি করতে গুগল (পর্ব ২)

বিজি লাইফকে ইজি করতে গুগল (পর্ব ২)

জিবোর্ডঃ কিবোর্ড নাকি ম্যাজিক?

আমার হাতের লেখা অনেক খারাপ, আম্মুর ভাষায় কাকের ঠ্যাং-বকের ঠ্যাং টাইপের। যখন স্কুলে পড়তাম তখন ভাবতাম, ইশশ এমন যদি হতো আমি যেটা মুখে বলবো কেউ সেটা লিখে দিবে! মজার ব্যাপার হলো স্কুল কলজ পেরিয়ে ভার্সিটিতে উঠতেই পেয়ে গেলাম সেই ম্যাজিক। তখন একটা প্রজেক্টে কাজ করতাম যেখানে প্রচুর ডেটা টাইপ করে এন্ট্রি দিতে হতো। আমার এই অসহনীয় কাজটা ম্যাজিকের মত সমাধান করে দিলো একটা কিবোর্ড। নাম তার গুগল কিবোর্ড বা GBoard. এরপর আমি মুখে বলে যেতে থাকলাম আর কিবোর্ড সেটা স্পিস টু টেক্সটে কনভার্ট করে আমার কাজটা করে দিতো।

এই কিবোর্ডের আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স আছে। কিভাবে একটু একটু অরে তার ইন্টেলিজেন্স ডেভেলপ করলো সেটা অবশ্য আমি ভালোভাবেই দেখেছি। ‘আমি ভাত’ এর পরে যে খায় না হয়ে খাই হবে প্রথমদিকে এইটুকু বুঝতে পারতো না প্রথমদিকে আর এখন কি অনায়েসে কঠিন সব লেখা হয়ে যায়। আমিও ভরসা করে খুব দ্রুত টাইপ করতে পারি। যদি ভুল কিছু লিখে ফেলি, জিবোর্ড তার বুদ্ধিমত্তা কাজে লাগিয়ে বুঝে নেয় আওরা কি লিখতে চাই আর সেভাবে ঠিক করে দেয়।

Gboard Handwriting

অনেকগুলো ভাষার পাশাপাশি হাতে লেখাও আয় কিন্তু এই কিবোর্ডে। আপনি হাতে লিখবেন আর সেটা টাইপ হয়ে যাবে, মজা না?

গুগল ট্রান্সলেটর

আমার জার্মান প্রবাসী বন্ধু আমাকে একবার ম্যাসেজ দিলো “Danke”, আমি খানিকক্ষণের জন্য কনফিউজড হয়ে গেলাম। সে কি কোনোভাবে আমাকে গাঁধা বললো? পরে গুগল ট্রান্সলেটর ইউজ করে বুঝলাম সে জার্মান ভাষায় আমাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে। একইভাবে বিশ্বের প্রায় প্রতিটা ভাষা খুব সহজে ট্রান্সলেট করে দেয় গুগল। এখন আর হিন্দি বুঝি না বলে কেউ কটাক্ষ করতে পারে না।

এছাড়াও এখানে আছে কনভার্সেশন মোড ফিচার। এই ফিচারের আওতায় অন্য ভাষার মানুষের সঙ্গে নিজস্ব ভাষায় কথা বলা যাবে। উদাহারণস্বরুপ, আপনি ইংরেজি ভাষার কারও সঙ্গে বাংলায় কথা বললে তিনি তা ইংরেজি ভাষায় শুনতে পাবেন।

এটা ইউজ করার জন্য সব সময় ইন্টারনেট কানেকশন দরকার এমনটা না। আপনার কাঙ্খিত ভাষার প্যাকেজ ডাউনলোড করে নিলে অফলাইনেও ইউজ করতে পারবেন।

Minhajul Abedin

Passionate | Ideator | Dreamer

Leave a Reply